সোমবার, ২৭ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে স্পেনে দূতাবাসের বিশেষ আয়োজন  » «   পদ্মা সেতুর স্মারক নোট বাজারে আসবে রবিবার  » «   পদ্মা সেতুর জন্য অভিনন্দন বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির  » «   অদম্য বাংলাদেশ, খুলল পদ্মার দ্বার  » «   আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই: প্রধানমন্ত্রী  » «   রেমিটেন্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণে মাদ্রিদে মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে মায়ের কোল থেকে ভেসে গেল শিশু, ৫ জনের মৃত্যু  » «   লন্ডনে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ইউকের বিশ বছরপূর্তি উদযাপন  » «   মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিবাদ এবং সাধারণ জনগণ  » «   স্পেনে ঢাকা ফ্রুতাস (Frutas) এর ১৬ বছর পূর্তি উৎসব অনুষ্ঠিত  » «   সিলেটে বন্যা : বৃষ্টি হয়েছে নদ-নদীর পানি কমেছে  » «   সিলেটে রানওয়েতে বন্যার পানি, বন্ধ বিমানের ফ্লাইট  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদে ছুটির দাবীতে আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ ২২শে জুন  » «   বিয়ানীবাজারে বিদ্রোহী প্রার্থী ও গোলাপগন্জে নৌকা বিজয়ী  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


৮ ও ৯ সেপ্টেম্বর লন্ডনে দু’দিন ব্যাপী বাংলাদেশ বইমেলা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব
 আয়োজক সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্য



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

 

 

বহুসংস্কৃতির চারণভূমি যুক্তরাজ্যের লণ্ডন শহরে প্রতি বছরের মতো এবারও বইমেলার উদ্যোগ নিয়েছে সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্য।এই সংগঠনের ব্যানারে ৯ম বইমেলা দু’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৮ ও ৯ সেপ্টেম্বর, পূর্ব লণ্ডনের ব্রাডি আর্ট সেণ্টারে।

এ উপলক্ষ্যে ৩০ আগস্ট ২:১৫ মিনিটে লণ্ডন বাংলা প্রেসক্লাব অফিসে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মেলার বিস্তারিত কর্মসূচী লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে তুলে ধরেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল।

মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। তার সঙ্গে থাকবেন সংস্কৃতিমন্ত্রণালেয়র ৩ সদস্যের  প্রতিনিধি দল।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন যুক্তরাজ্যস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনার  সাঈদা মুনা তাসনীম, টাওয়ার হ্যামলেট্স কাউন্সিলের নির্বাহী মেয়র জনাব জন বিগ্স, মহান একুশের অমর গানের রচয়িতা বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান ভীষ্মদেব চৌধুরী, বিশিষ্ট সাহিত্যিক ড. শাহাদুজ্জামান, মুক্তিযুদ্ধের  সংগঠক যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, বাংলাদেশ প্রতিদিন-এর সম্পাদক জনাব নঈম নিজাম এবং লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে দু‘দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে উল্লেখ করা হয়, প্রথম দিন সকাল সাড়ে এগারোটায় অনুষ্ঠান উদ্বোধন করবেন বিশেষ অতিথি, সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা প্রবীন  সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী।

প্রতিদিন দুপুর থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে অনুষ্ঠানের বিভিন্ন কর্মসূচী। এছাড়া থিয়েটার হলে আলোচনা সভা, পদকপ্রদান, কবিদের কণ্ঠে কবিতা পাঠ, আবৃত্তি এবং সব শেষে বিলেতের শিল্পীরা পরিবশেন করবেন সঙ্গীতানুষ্ঠান।

লিখিত বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্ন-উত্তরে অংশ নেন সংগঠনের সভাপতি গবেষক ফারুক আহমদ, সাধারণ সম্পাদক  কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল, কার্যকরী কমিটির অন্যতম মেম্বার ড. মুকিদ চৌধুরী, ট্রেজারার কবি এ কে এম আবদুল্লাহ।

বাংলাদেশ সরকার এর পক্ষ থেকে গত বছরও কোন সহযোগিতা ছিলো না। এবারও কী শেষমেষ একই পরিস্থিতির মুখোমুখী হতে হবে আপনাদের? সাংবাদিকের প্রশ্নের  উত্তরে সংগঠনের সভাপতি ফারুক আহমদ বলেন,  ‘আমরা এবার তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছি এবং বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে একটি প্রস্তাবও রাখা হয়েছে যাতে আমরা এই মেলায় বঙ্গবন্ধুর নামে একটি কর্ণার রাখি; যেখানে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত বিভিন্ন গ্রন্থ রাখা হবে। তাছাড়া এ বছর বাংলাদেশ সরকার বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শতবর্ষ কর্মসূচীও নিয়েছে, সেটার অংশ হিসেবেও সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ  এটিকে মূল্যায়ন করতে চায়।’

সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ   ২০১৮ সালে  কবি সাহিত্যিকদের পদক দিয়েছিল। এবারও কী সেটা থাকছে?  প্রশ্নের জবাবে  সাধারণ সম্পাদক  কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল বলেন, ‘এটি কোনো নিয়মিত পদক প্রদান নয়। সংগঠন চাইলে মাঝে মধ্যে কাউকে মূল্যায়নের  উদ্যোগ নিতে পারে। তবে  এ বছর  সংগঠনের  পক্ষ থেকে কোনো পদক প্রদান করা হচ্ছে না।’

এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে পদক বা পুরুষ্কার সম্পর্কে ড. মুকিদ চৌধুরী বলেন, ‘অনুষ্ঠানে  আগামী প্রকাশনী  একটি পদক প্রদান করবে। যেটির নামকরণ হচ্ছে – দ্রোহী কথাসাহিত্যিক আব্দুর রউফ চৌধুরী স্মৃতিপদক । এটি আমাদের সংগঠনের কোনো উদ্যোগ নয়, কিন্তু আমাদের অতিথি প্রকাশনী আমাদের অনুষ্ঠানের পরিসরটি কেবলমাত্র ব্যবহার করবে। যেহেতু প্রবাসী যে কাউকে এই পদকটি প্রদান করা হবে আর পদকটি একজন প্রবাসী লেখকের নামে সে হিসেবে আমরা এটিকে আমাদের মূল্যায়ন বলেই মনে করি।’

দুদিন ব্যাপী  বাংলাদেশ বইমেলা উৎসবে থাকছে নানা আয়োজন:

 দু’দিন ব্যাপী এই মেলা ও উৎসব চলবে প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। পাশাপাশি ব্রার্ডি আর্ট সেন্টারের স্টুডিও থিয়েটারে প্রথমদিন, ৮ সেপ্টেম্বর রবিবার থাকবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, পদক প্রদান, কবিদের কন্ঠে কবিতাপাঠ, কবিতা আবৃত্তি এবং সব শেষে বিলেতের শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সঙ্গীতানুষ্ঠান।

দ্বিতীয় দিন, ৯ সেপ্টেম্বর সোমবার  রয়েছে তিনটি সেমিনার।

প্রথম সেমিনার শুরু হবে দুপুর বারোটায়। বিষয় : ‘বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতির বিকাশে সরকারের পরিকল্পনা’। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন ড. শেখ মুসলিমা মুন, ডেপুটি সেক্রেটারি, সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।

দ্বিতীয় সেমিনার শুরু হবে বিকেল ২:৩০টায়। বিষয় : ‘অনাবাসী সাহিত্য‘। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন বিলেতবাসী কবি হামিদ মোহাম্মদ।

তৃতীয় সেমিনার শুরু হবে বিকাল ৩:৩০টায়। বিষয় : লেখক ও প্রকাশ সম্পর্ক।

সেমিনার তিনটির আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন- ড. ভীষ্মদেব চৌধুরী, ড. শাহাদুজ্জামান, শামীম আজাদ, নঈম নিজাম, ওসমান গণি, ড. মুকিদ চৌধুরী, এমদাদুল হক চৌধুরী, মিলটন রহমান প্রমুখ।

দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় পর্বে আরও রয়েছে লেখক, কবি ও শিল্পীদের নিয়ে কবিতাপাঠ, গল্পবলা এবং সঙ্গীতানুষ্ঠান। অনুষ্ঠান উপলক্ষে একটি  উৎসব স্মারক প্রকাশিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্য পক্ষ থেকে  অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্ঠা হামিদ মোহাম্মদ,সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার শাহজাহান,সহ সাধারণ সম্পাদক স্মৃতি আজাদ,সহ কোষাধক্ষ্য সৈয়দ হিলাল সাইফ,মেম্বার সেক্রেটারী মোহাম্মদ মুহিদ,নির্বাহী সদস্য ময়নূর রহমান বাবুল, আনোয়ারুল ইসলাম অভি ও  ছালেহ আহমদ।

  আরও পড়ুন:‘বাংলাদেশ  বইমেলা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৮’। 

লন্ডনে বাংলাদেশকে ধারণ করে বইমেলা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব

 

 

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ওয়ালি মাহমুদ, সাহিত্য সম্পাদক

নব্বই দশকের কবি। পুরো নাম মোহাম্মদ ওয়ালিউর রহমান মাহমুদ। বাংলাদেশের সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার থানাধীন জলঢুপ পাতন গ্রামের মতিউর রহমান মাহমুদ রোডের দেওয়ান ভিলা’য় ১লা আগস্ট, ১৯৭২ সালে জন্ম গ্রহণ করেন।

১৯৮৬ সালে দেয়াল পত্রিকার মাধ্যমে প্রথম লেখালেখির হাতে খড়ি। কাব্যের জগতে কখনো গদ্যের তীরে হাঁটতে হাঁটতে কুশিয়ারা, কখনোবা পদ্যের তীর ঘেঁষে সুনাই অথবা বিলেতের টেমস অবধি। নিয়মমাফিক বৃত্তের বাইরে স্বতন্ত্র অবস্থানের পুন:পুন: প্রচেষ্টায় মলাটবন্দী কাব্যের পঙক্তিমালার সযত্ন সৃষ্টি, কবিতাকে চিনিয়ে দেয় গভীরভাবে।

প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ ও গবেষণা এবং সম্পাদিত লিটলম্যাগ যথাক্রমে: ভালোবাসার পোয়াতি (কোলাজ, ১৯৯৯), যৈবতী শোন (কোলাজ, ১৯৯৯), একটি দীর্ঘশ্বাসের মৃত্যু, উঊঅঞঐ ঙঋ অ ঝওএঐ (উৎস, ২০০১), আমি এক উত্তরপুরুষ, ও অগ ঞঐঊ উঊঝঈঊঘউঅঘঞ (উৎস, ২০০২), নির্বাসনে, নির্বাচিত দ্রোহ (ম্যাগনাম ওপাস, ২০০৪), ১২৩৭ দাগ (এডিটর’স ইংল্যান্ড, ২০১৪); ডায়াস্পরা গবেষণা: দ্রোহী কথাসাহিত্যিক আব্দুর রউফ চৌধুরীর সাহিত্যসম্ভার (এডিটর’স ইংল্যান্ড, ২০১৩); সম্পাদিত লিটলম্যাগ: কবিয়াল (সম্পাদিত, ১৯৯২), শিকড় (সম্পাদিত, ১৯৯৪), ও ইংল্যাণ্ড এবং বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত লোকন লিটলম্যাগ সম্পাদনা করেন।
ই-মেইল: walimahmud@yahoo.co.uk