সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
 পরিচ্ছন্ন সিলেটের স্বপ্ন দেখছে প্রজেক্ট ‘ক্লীন সুরমা, গ্রীন সিলেট’  » «   বাংলাদেশের মুক্ত অর্থণেতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করবে আরব আমিরাত  » «   আজমানে স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্য ব্যবসায়িদের সাথে কনসাল জেনারেলের মতবিনিময়  » «   ডাকসুর কোষাধ্যক্ষ অপসারন ও ৩৪ জনের ছাত্রত্ব বাতিলের দাবীতে ভিপি’র চিঠি  » «   কাতালোনীয়ার স্বাধীনতার ডাকে লক্ষ লক্ষ জনতার সমাবেশ  » «   সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে: জয়  » «   সিলেটে বাম গণতান্ত্রিক জোটের জনসভা  » «   শীঘ্রই আমিরাতের আজমানে বাংলাদেশ স্কুল প্রতিষ্ঠা হচ্ছে  » «   সংহতি আমিরাতের শাহ আব্দুল করিম উৎসব  » «   লন্ডনে বিয়ানীবাজারের প্রবীন ব্যক্তিত্ব আবদুস সাত্তার স্মরণ সভা  » «   কৃুয়েত দূতাবাসের বিতর্কিত কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা  » «   মাদকেরও অভিযোগ : প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শোভন-রাব্বানীর দেখা করার অনুমতি স্থগিত  » «   নেপাল-চীনেও ডেঙ্গু : বিভিন্ন দেশ ভ্রমণে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র  » «   বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার ও বিসিএ শেফ অফ দ্যা ইয়ার এর প্রতিযোগিতা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু  » «   রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বসবাসের কোনো চিহ্নই নেই  » «  

৮ ও ৯ সেপ্টেম্বর লন্ডনে দু’দিন ব্যাপী বাংলাদেশ বইমেলা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব

 আয়োজক সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্য



 

 

বহুসংস্কৃতির চারণভূমি যুক্তরাজ্যের লণ্ডন শহরে প্রতি বছরের মতো এবারও বইমেলার উদ্যোগ নিয়েছে সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্য।এই সংগঠনের ব্যানারে ৯ম বইমেলা দু’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৮ ও ৯ সেপ্টেম্বর, পূর্ব লণ্ডনের ব্রাডি আর্ট সেণ্টারে।

এ উপলক্ষ্যে ৩০ আগস্ট ২:১৫ মিনিটে লণ্ডন বাংলা প্রেসক্লাব অফিসে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মেলার বিস্তারিত কর্মসূচী লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে তুলে ধরেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল।

মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। তার সঙ্গে থাকবেন সংস্কৃতিমন্ত্রণালেয়র ৩ সদস্যের  প্রতিনিধি দল।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন যুক্তরাজ্যস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনার  সাঈদা মুনা তাসনীম, টাওয়ার হ্যামলেট্স কাউন্সিলের নির্বাহী মেয়র জনাব জন বিগ্স, মহান একুশের অমর গানের রচয়িতা বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান ভীষ্মদেব চৌধুরী, বিশিষ্ট সাহিত্যিক ড. শাহাদুজ্জামান, মুক্তিযুদ্ধের  সংগঠক যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, বাংলাদেশ প্রতিদিন-এর সম্পাদক জনাব নঈম নিজাম এবং লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে দু‘দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে উল্লেখ করা হয়, প্রথম দিন সকাল সাড়ে এগারোটায় অনুষ্ঠান উদ্বোধন করবেন বিশেষ অতিথি, সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা প্রবীন  সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী।

প্রতিদিন দুপুর থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে অনুষ্ঠানের বিভিন্ন কর্মসূচী। এছাড়া থিয়েটার হলে আলোচনা সভা, পদকপ্রদান, কবিদের কণ্ঠে কবিতা পাঠ, আবৃত্তি এবং সব শেষে বিলেতের শিল্পীরা পরিবশেন করবেন সঙ্গীতানুষ্ঠান।

লিখিত বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্ন-উত্তরে অংশ নেন সংগঠনের সভাপতি গবেষক ফারুক আহমদ, সাধারণ সম্পাদক  কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল, কার্যকরী কমিটির অন্যতম মেম্বার ড. মুকিদ চৌধুরী, ট্রেজারার কবি এ কে এম আবদুল্লাহ।

বাংলাদেশ সরকার এর পক্ষ থেকে গত বছরও কোন সহযোগিতা ছিলো না। এবারও কী শেষমেষ একই পরিস্থিতির মুখোমুখী হতে হবে আপনাদের? সাংবাদিকের প্রশ্নের  উত্তরে সংগঠনের সভাপতি ফারুক আহমদ বলেন,  ‘আমরা এবার তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছি এবং বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে একটি প্রস্তাবও রাখা হয়েছে যাতে আমরা এই মেলায় বঙ্গবন্ধুর নামে একটি কর্ণার রাখি; যেখানে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত বিভিন্ন গ্রন্থ রাখা হবে। তাছাড়া এ বছর বাংলাদেশ সরকার বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শতবর্ষ কর্মসূচীও নিয়েছে, সেটার অংশ হিসেবেও সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ  এটিকে মূল্যায়ন করতে চায়।’

সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ   ২০১৮ সালে  কবি সাহিত্যিকদের পদক দিয়েছিল। এবারও কী সেটা থাকছে?  প্রশ্নের জবাবে  সাধারণ সম্পাদক  কবি ইকবাল হোসেন বুলবুল বলেন, ‘এটি কোনো নিয়মিত পদক প্রদান নয়। সংগঠন চাইলে মাঝে মধ্যে কাউকে মূল্যায়নের  উদ্যোগ নিতে পারে। তবে  এ বছর  সংগঠনের  পক্ষ থেকে কোনো পদক প্রদান করা হচ্ছে না।’

এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে পদক বা পুরুষ্কার সম্পর্কে ড. মুকিদ চৌধুরী বলেন, ‘অনুষ্ঠানে  আগামী প্রকাশনী  একটি পদক প্রদান করবে। যেটির নামকরণ হচ্ছে – দ্রোহী কথাসাহিত্যিক আব্দুর রউফ চৌধুরী স্মৃতিপদক । এটি আমাদের সংগঠনের কোনো উদ্যোগ নয়, কিন্তু আমাদের অতিথি প্রকাশনী আমাদের অনুষ্ঠানের পরিসরটি কেবলমাত্র ব্যবহার করবে। যেহেতু প্রবাসী যে কাউকে এই পদকটি প্রদান করা হবে আর পদকটি একজন প্রবাসী লেখকের নামে সে হিসেবে আমরা এটিকে আমাদের মূল্যায়ন বলেই মনে করি।’

দুদিন ব্যাপী  বাংলাদেশ বইমেলা উৎসবে থাকছে নানা আয়োজন:

 দু’দিন ব্যাপী এই মেলা ও উৎসব চলবে প্রতিদিন দুপুর ১২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। পাশাপাশি ব্রার্ডি আর্ট সেন্টারের স্টুডিও থিয়েটারে প্রথমদিন, ৮ সেপ্টেম্বর রবিবার থাকবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা, পদক প্রদান, কবিদের কন্ঠে কবিতাপাঠ, কবিতা আবৃত্তি এবং সব শেষে বিলেতের শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সঙ্গীতানুষ্ঠান।

দ্বিতীয় দিন, ৯ সেপ্টেম্বর সোমবার  রয়েছে তিনটি সেমিনার।

প্রথম সেমিনার শুরু হবে দুপুর বারোটায়। বিষয় : ‘বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতির বিকাশে সরকারের পরিকল্পনা’। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন ড. শেখ মুসলিমা মুন, ডেপুটি সেক্রেটারি, সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।

দ্বিতীয় সেমিনার শুরু হবে বিকেল ২:৩০টায়। বিষয় : ‘অনাবাসী সাহিত্য‘। মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন বিলেতবাসী কবি হামিদ মোহাম্মদ।

তৃতীয় সেমিনার শুরু হবে বিকাল ৩:৩০টায়। বিষয় : লেখক ও প্রকাশ সম্পর্ক।

সেমিনার তিনটির আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন- ড. ভীষ্মদেব চৌধুরী, ড. শাহাদুজ্জামান, শামীম আজাদ, নঈম নিজাম, ওসমান গণি, ড. মুকিদ চৌধুরী, এমদাদুল হক চৌধুরী, মিলটন রহমান প্রমুখ।

দ্বিতীয় দিনের তৃতীয় পর্বে আরও রয়েছে লেখক, কবি ও শিল্পীদের নিয়ে কবিতাপাঠ, গল্পবলা এবং সঙ্গীতানুষ্ঠান। অনুষ্ঠান উপলক্ষে একটি  উৎসব স্মারক প্রকাশিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সম্মিলিত সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদ যুক্তরাজ্য পক্ষ থেকে  অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্ঠা হামিদ মোহাম্মদ,সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার শাহজাহান,সহ সাধারণ সম্পাদক স্মৃতি আজাদ,সহ কোষাধক্ষ্য সৈয়দ হিলাল সাইফ,মেম্বার সেক্রেটারী মোহাম্মদ মুহিদ,নির্বাহী সদস্য ময়নূর রহমান বাবুল, আনোয়ারুল ইসলাম অভি ও  ছালেহ আহমদ।

  আরও পড়ুন:‘বাংলাদেশ  বইমেলা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৮’। 

লন্ডনে বাংলাদেশকে ধারণ করে বইমেলা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব