সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
 পরিচ্ছন্ন সিলেটের স্বপ্ন দেখছে প্রজেক্ট ‘ক্লীন সুরমা, গ্রীন সিলেট’  » «   বাংলাদেশের মুক্ত অর্থণেতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করবে আরব আমিরাত  » «   আজমানে স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্য ব্যবসায়িদের সাথে কনসাল জেনারেলের মতবিনিময়  » «   ডাকসুর কোষাধ্যক্ষ অপসারন ও ৩৪ জনের ছাত্রত্ব বাতিলের দাবীতে ভিপি’র চিঠি  » «   কাতালোনীয়ার স্বাধীনতার ডাকে লক্ষ লক্ষ জনতার সমাবেশ  » «   সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে: জয়  » «   সিলেটে বাম গণতান্ত্রিক জোটের জনসভা  » «   শীঘ্রই আমিরাতের আজমানে বাংলাদেশ স্কুল প্রতিষ্ঠা হচ্ছে  » «   সংহতি আমিরাতের শাহ আব্দুল করিম উৎসব  » «   লন্ডনে বিয়ানীবাজারের প্রবীন ব্যক্তিত্ব আবদুস সাত্তার স্মরণ সভা  » «   কৃুয়েত দূতাবাসের বিতর্কিত কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা  » «   মাদকেরও অভিযোগ : প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শোভন-রাব্বানীর দেখা করার অনুমতি স্থগিত  » «   নেপাল-চীনেও ডেঙ্গু : বিভিন্ন দেশ ভ্রমণে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র  » «   বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার ও বিসিএ শেফ অফ দ্যা ইয়ার এর প্রতিযোগিতা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু  » «   রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বসবাসের কোনো চিহ্নই নেই  » «  

লাইম হাউজ ও পপলার আসনকে নারীদের জন্য সংরক্ষিত করার সিদ্ধান্ত প্রত্যারের দাবী



লন্ডনে বাঙালী  অধ্যুষিত লাইম হাউজ ও পপলার সংসদীয় আসনে লেবার দলীয় প্রার্থী  বাচাই  প্রক্রিয়া নিয়ে বিতর্ক শুরু  হয়েছে । দীর্ঘদিন থেকে এই আসন লেবার পার্টির দখলে আছে। এ আসনের বর্তমান এমপি লেবার পার্টির জিম ফিজ পেট্রিক টানা ৬ মেয়াদে হাউজ অব কমন্সে প্রতিনিধিত্ব করছেন। তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার ঘোষণা দিলে এ আসনে আরেকজন বাঙ্গালী এমপি নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

অভিযোগ উঠেছে, সম্প্রতি লেবার পার্টির এনইসি স্থানীয় লেবার পার্টিকে অন্ধকারে রেখে টাওয়ার হ্যামলেটস এর পপলার ও লাইম হাউস আসনকে লেবার পার্টির নারী আসন হিসেবে ঘোষণা দেয়।

স্থানীয় লেবার পার্টির নেতা কর্মীরা লেবার পার্টির এনইসি‘র এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে  এই আসনের বিএএমই সদস্যরা আয়োজন করেন এক প্রতিবাদ সমাবেশ। সমাবেশে বক্তারা এনইসি’র এই সিদ্ধান্তকে অগণতান্ত্রিক আখ্যায়িত করে সকল নেতা কর্মীদের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার অধিকার পুনর্বহাল করার জোর দাবী জানান।

২২ আগষ্ট বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় পূর্বলন্ডনের  শ্যাডওয়েলের একটি সেন্টারে  প্রতিবাদ সভা মামুনুর রশীদের সভাপতিত্ত্বে এবং রুহুল আমিনের সঞ্চালনায়  বক্তব‍্য রাখেন সাবেক কাউন্সিল লিডার হেলাল উদ্দিন আব্বাস, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পীকার ভিক্টোরিয়া ওবাজি, সাবেক স্পিকার কাউন্সিলার আয়াছ মিয়া, কাউন্সিলার পুরু মিয়া, কাউন্সিলার ইশতেহাম, কেবিনেট মেম্বার কাউন্সিলার সাবিনা আক্তার , কাউন্সিলার শাহ সোহেল আমিন, কাউন্সিলার কাহার চৌধুরী।

প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন সাবেক জিইসি সেক্রেটারী আফসানা বেগম, ব্যারিষ্টার আবু সুফিয়ান চৌধুরী, ছানু মিয়া সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।সভায় কাউন্সিলার এহতেশাম এই অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে মোমেনটাম গ্রুপ থেকে পদত্যাগের হুমকি দেন।

তবে সাবেক জিইসি সেক্রেটারী আফসানা বেগম অল্প সময় উপস্থিত থেকে সভাস্থল ত্যাগ করেন। তার সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে সংস্লিষ্ট বিষয়ে মন্তব্য করতে অপারগতা প্রকাশ করেন।