বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২১ আগস্টের ঘটনা ছিল গভীর নীলনকশার অংশ : রিজভী  » «   বৃহস্পতিবার প্রত্যাবাসনের জন্য কোন রোহিঙ্গা পাওয়া যায় নি  » «   ২১ আগস্ট নিয়ে সংহতি আমিরাতের প্রতিবাদি কবিতার আয়োজন  » «   রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার  » «   শিক্ষার আলো পৌছাতে শিক্ষকের প্রতিদিন ১৮ মাইল ঘোড়ায় চড়া  » «   মাদ্রিদে হবিগঞ্জ এসোসিয়েশন এর আনন্দ ভ্রমণ  » «   কাতালোনিয়া মহিলা সমিতির বনভোজন ও ঈদ পুনর্মিলনী  » «   চামড়া শিল্পের জন্য সহায়ক নীতি প্রয়োজন  » «   উপমহাদেশের এক মহানায়ক হাওরের সন্তান আনন্দমোহন বসু  » «   একশ প্রতিবন্ধীর মুখে হাসি ফুটিয়েছে গোলাপগঞ্জ উপজেলা হেল্পিং হ্যান্ডস ইউকে  » «   চন্দরপুর ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্বনির্ভরতার পথ দেখাবে  » «   বার্মিংহামে কসবা-খাসা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে’র প্রীতি সমাবেশ  » «   কাতালোনীয়া সান্তা কলমা আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবস পালন  » «   পর্তুগাল আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবস  » «   মদিনায় বাস দূর্ঘটনায় নিখোঁজ ১ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে  » «  

আমিরাতে প্রস্তাবিত শেখ মুজিবুর রহমান সেন্টেনিয়াল স্কুলের চুক্তিস্বাক্ষরিত



জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বর্ষ উপলক্ষে সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রস্তাবিত ‘শেখ মুজিবুর রহমান সেন্টেনিয়াল স্কুল ‘ (বর্তমান বাংলাদেশ ইংলিশ প্রাইভেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ) নির্মিত হতে যাচ্ছে। মঙ্গলবার রাস-আল-খাইমার ইকোনমিক জোন (RAKEZ) এর সাথে ৫০ বছর মেয়াদি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ সময় আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডা. মোহাম্মদ ইমরান, দুবাইয়ে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসেন খানসহ স্কুল পরিচালনা পর্ষদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরে রাক হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সময় রাষ্ট্রদূত ডা. মোহাম্মদ ইমরান, দুবাইয়ে নিযুক্ত কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসেন খান ও স্কুল পরিচালনা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তাজ উদ্দিন আগামি কর্ম পরিকল্পনা তুলে ধরেন। বক্তারা বলেন, প্রবাসে হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে এই আয়োজন দেশ-বিদেশে নজির হয়ে থাকবে। সেই সাথে পরবাসে বেড়ে ওঠা প্রজন্ম এই মহাপুরুষের ইতিহাস জানতে পারবে সহজেই। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন কনসুলেটের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর কামরুল হাসান, শ্রম কাউন্সেলর ফাতেমা জাহান, প্রথম সচিব (শিক্ষা-সংস্কৃতি ও পর্যটন) রফিকুল আমিন, প্রকৌশলী আবু জাফর চৌধুরী, অধ্যাপক আবদুস সবুর, ব্যাংক আব্দুল করিম সুজা, আইয়ূব আলী বাবুলসহ আরো অনেকে।

প্রসঙ্গত, এই স্কুল নানা সমস্যার কবলে পড়লে সম্প্রতিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমিরাত সফরকালে স্কুলটি টিকিয়ে রাখতে সরকারিভাবে অর্থ সহায়তার আশ্বাস দেন। আরব আমিরাতে বসবাসরত প্রবাসিরাও আর্থিক সহায়তা করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশি কমিউনিটি এ স্কুলটি ১৯৯১ সালে রাস আল খাইমায় প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে ৮৭ হাজার বর্গফুট আয়তনের অবকাঠামো তৈরি ও অন্যান্য খরচ মিলে এতে ব্যয় হতে পারে প্রায় ১৫ মিলিয়ন দিরহাম।