বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কেসি সলিসিটর্সের দশক পূর্তি উদযাপন  » «   বঙ্গবন্ধু স্কলারশিপ আন্তর্জাতিক অঙ্গণে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রতিচ্ছবি  » «   লীলা নাগের স্মৃতি রক্ষায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উদ্যোগ নেবে  » «   ফুসফুস-ক্যান্সার পরীক্ষার জন্য মাইল এন্ড লেজার সেন্টারে স্থাপন করা হচ্ছে বিশেষ ‘স্ক্রিনিং মেশিন’  » «   অলি-মিঠু-টিপু প্যানেলের পরিচিতি ও ইশতেহার ঘোষণা  » «   ২০ নভেম্বর লন্ডনের রয়েল রিজেন্সিতে ৫ম বেঙ্গলী ওয়েডিং ফেয়ার  » «   একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির যুক্তরাজ্য শাখা গঠিত  » «   টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা পেলেন সিলেটের ২৪গুণী শিক্ষক  » «   নওয়াগ্রাম প্রগতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ফুল, ফল ও ঔষধি বৃক্ষরোপণ  » «   আলোকিত মানুষ শিক্ষক মো. সমছুল ইসলাম এর ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী  » «   সিলেটের বিয়ানীবাজারে একটি পরিত্যক্ত কূপে তাজা গ্যাসের মজুদ আবিষ্কৃত  » «   বাংলাদেশী কারী  ব্রিটেনের প্রবৃত্তি ও খাবার সংস্কৃতিতে অনন্য  অবদান রাখছে  » «   পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীবাদের প্রতিবন্ধকতা  » «   রিষি সুনাক এশিয়ান বংশদ্ভোত, কনজারভেটিভ এবং ধনীদের বন্ধু  » «   গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টিকারীদের ব্যাপারে সতর্ক থাকার আহবান  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


প্রকৃতি ঘেরা রাঙাউটি রিসোর্ট
প্রবাসীরা পরিবার নিয়ে কাটাতে পারবেন আনন্দময় সময়



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সিলেটে চায়ের দেশ মৌলভীবাজারে প্রকৃতি ঘেরা অনিন্দ্য সুন্দর এক রিসোর্ট-রাঙাউটি রিসোর্ট। প্রবাসীরা  দেশে পরিবার পরিজন নিয়ে আনন্দময় সময় কাটানোর মতো পরিচ্ছন্ন, নিরাপদ, নিরিবিলি এবং সকল সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন উপকরণে সাজানো রিসোর্টটি ইতিমধ্যে সুনাম কুড়িয়েছে।

প্রকৃতির অসীম সৌন্দর্যের আঁধারে ভরপুর মৌলভীবাজার জেলা । পাহাড়, নদী, অরণ্য, হাওর আর সবুজ চা বাগানঘেরা এই জেলার সৌন্দর্যের সাথে নতুন মাত্রা যোগ করেছে এই রাঙাউটি রিসোর্ট।

কৃত্রিম এবং প্রকৃতির মেল বন্ধনে গড়া অপরূপা রাঙাউটি রিসোর্টটি সাধ আর সাধ্যের ভিতরেই হতে পারে পরিবার-পরিজন নিয়ে অবকাশ যাপনের অনন্য জায়গা।

মৌলভীবাজার জেলা শহর থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত মনু ব্যারেজের পাশে রাঙাউটি রিসোর্টের অবস্থান। ৪৫ একর জায়গা জুড়ে বিস্তৃত এই রাঙাউটি রিসোর্ট যাত্রা শুরু করে ২০০৯ সালে।

রিসোর্টটির অনন্য স্থাপত্যশৈলী  দারুণ মনোমুগ্ধতায় সময় পার করার জন্য খুবই সহায়ক।  রিসোর্টটি বলা যায় সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব। চারপাশ মায়াময় সবুজের আবরণে মোড়া। মনখোলা প্রশান্তির প্রাকৃতিক পরিবেশের মাঝে দারুণ কিছু সময় কাটানোর জন্য এই রিসোর্ট টি হতে পারে অনন্য। বিস্তারিত দেখুন সাব্বির আহমেদ পরাগ এর তথ্যচিত্রে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন