শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
ইন্টারন্যাশনাল ক্যারাম প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছেন দুই বৃটিশ বাংলাদেশী  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ব্রিটিশ-বাংলাদেশী হুজহু ৭জন ব্রিটিশ বাংলাদেশিকে সম্মানিত করেছে  » «   ইতালীতে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে সংবর্ধনা ও মত বিনিময় সভা  » «   যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলে কিশোরের গুলিবর্ষন: শিক্ষার্থী নিহত  » «   নতুন নেতৃত্বে বিয়ানীবাজার আওয়ামী লীগ  » «   এথিক্স এন্ড স্টেন্ডার্ড-বিষয়ে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের আলোচনা  » «    ইতালিতে মসজিদে হামলার পরিকল্পনা  » «   ক্রিকেটারদের খেলার সরঞ্জামাদি  বিতরণ করেছে ফেডারেশন দ্যা ক্রিকেট কাতালান  » «   বাংলা টাউন থেকে রুশনারা আলী‘র নির্বাচনী প্রচারনায় শুরু  » «   বিয়ানীবাজারে অত্যাধুনিক ইনকিউভেটর ও ফটোথেরাপি মেশিনে নবজাতকের সেবা চালু  » «   আবুধাবী এয়ারপোর্টে বাংলা টাইগার্সের খেলোয়াড়দের বরণ  » «   ফ্রান্সে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন  » «   যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেছে যুবলীগ ইতালী শাখা  » «   পপলার ও লাইমহাউজ আসনে আপসানা বেগমর আনুষ্ঠানিক ক্যাম্পেইন শুরু  » «   আওয়ামী যুবলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করেছে কাতালোনীয়া যুবলীগ  » «  

বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজ পরিদর্শনে প্রতিষ্ঠাকালীন সংগঠক ছরওয়ার আহমদ

 পিন পতন নিরবতায় শিক্ষার্থীরা শুনলেন প্রেরণাদায়ী বক্তব্য



পিনপতন নিরবতায় শিক্ষার্থীরা শুনলেন একজন সংগঠক ও  ছাত্রনেতার প্রেরণাদায়ী বক্তব্য। অনুষ্ঠানকে নিয়ে ছিল না কোন চাকচিক্য। ছিল না বিশেষ বিশেষণের আধিক্যও। কলেজের শিক্ষার্থীরা  প্রতিষ্ঠাকালীন সংগঠকের বক্তব্যে জেনেছেন কলেজ প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ের অনেক জানা-অজানানা তথ্য।প্রেরণা পেয়েছেন আগামী দিনে  নিজ কলেজের জন্য ভালো কাজে সম্পৃক্ত হবার।  শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের  উপস্থিতিতে পুরো অনুষ্ঠানে  ছিল সৃজনশীলতার ছাপ।

বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠাকালীন অন্যতম সংগঠক, যুক্তরাজ্যপ্রবাসী বিশিষ্ট সংগঠক  ছরওয়ার আহমদ ২৫ জুলাই বৃহস্পতিবার কলেজ পরিদর্শনে আসেন। পরে শিক্ষক এবং ছাত্রীদের উপস্থিতিতে অর্থনীতির প্রভাষক মোহাম্মদ খালেদ হোসেনের সঞ্চালনায় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে তিনি বক্তব্য রাখেন।  নিজের জীবনের নানা অভিজ্ঞতা ছাত্রীদের সাথে শেয়ার করেন।

বিয়ানীবাজার সরকারী কলেজ এর সাবেক ভিপি,  তুমুল জনপ্রিয় পরিচ্ছন্ন সাবেক ছাত্রনেতা  ছাত্রীদের উদ্দেশে বলেন, ‘মহান সৃষ্টিকর্তার উপর বিশ্বাস রেখে, সৎ থেকে চেষ্টা করো, তোমরা অবশ্যই তোমাদের অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে। মনে রাখতে হবে, জীবনে সততার বিকল্প কিছুই নেই। সৎ উদ্দেশ্য নিয়ে কাজে হাত দিলে যে আল্লাহ সাহায্য করেন এবং সফল করেন তার উদাহরণ বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজ। এ কলেজ প্রতিষ্ঠায় যাঁরা উদ্যোগ নিয়েছিলেন তাঁদের কারো টাকা-পয়সা ছিল না। কিন্তু কলেজ ঠিকই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠাকালীন অন্যতম  এই সংগঠক বলেন, উদ্যোগের সূচনার দিকে লোকে আমাদের নিয়ে অনেক হাসাহাসি করেছে । কিন্তু বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজ আজকে একটা মহৎ বাস্তবতা।’

পরে ছাত্রীরা বিয়ানীবাজার আদর্শ মহিলা কলেজ পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁকে শুভেচছা-স্মারক হিসেবে একটি ক্রেস্ট প্রদান করে।

কলেজের শিক্ষকদের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দর্শন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেফু দত্ত, পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জসীম উদ্দীন আহমদ, ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক প্রিয়তোষ চক্রবর্তী, জীববিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক মোহাম্মদ কবির হোসেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক প্রত্যুষ কান্তি দাস এবং বাংলা বিভাগের প্রভাষক প্রতিমা রাণী দাস প্রমুখ।