মঙ্গলবার, ২ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
সোয়া ছয় কোটি মানুষের হাতে সরকারের ত্রাণ  » «   শারজাহর মসজিদগুলিতে পরিচ্ছন্নকরণ অব্যাহত  » «   ‘আলোকিত ৯৫ মাদারীপুর’ এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ২০২০ উদযাপন  » «   পরিবহন কল্যাণ তহবিলের টাকা নিয়ে সিলেটে শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ, ভাঙচুর  » «   আমিরাত নিউজ এজিন্সিতে বাংলা ভাষা সংযুক্ত করা হয়েছে  » «   নিজ খরছে দেশে যেতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের তালিকা করা হবে  » «   করোনা থেকে বাঁচতে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার আহ্বান পরিবেশমন্ত্রীর  » «   লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যা: মানব পাচারকারী চক্রের হোতা হাজী কামাল গ্রেফতার  » «   করোনার দুর্যোগে আরব আমিরাতে ভিসা নিষেধাজ্ঞা তোলে নেয়া হয়েছে  » «   ইতালীতে শুরু হয়েছে বৈধকরণের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম  » «   বিয়ানীবাজারের ৫৩১টি মসজিদ পাবে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান  » «   সারাদেশে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ২২, সিলেটে ১ জন  » «   মসজিদ-আল-হারাম ও আল-নববী নামাজের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে  » «   জিয়াউর রহমানের ৩৯তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে ইতালী বি এন পি’র দোয়া ও মিলাদ মাহফিল  » «   এমপি শামিম ওসমানের সহায়তায় করোনা আক্রান্ত কাউন্সিলার ও তার স্ত্রী স্কোয়ার হাসপাতালে  » «  

ইউরোপ ৯০ হাজার বাংলাদেশি ফেরত পাঠাবে



ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে বসবাসরত ৯০ হাজার বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠাবে ইইউ’র দেশগুলো। এজন্য দুই বছর আগে বাংলাদেশের সঙ্গে স্ট্যান্ডার্ড অপারেশন প্রসিডিউর (এসওপি) স্বাক্ষর হয়েছে।তবে নিজ নিজ দেশের আইনি জটিলতার কারণে এখনো ফেরত পাঠাতে পারছে না দেশগুলো।

বাংলাদেশের কর্মকর্তা বলছেন, বাংলাদেশ তার নাগরিকদের ফেরত নিতে প্রস্তুত। কিন্তু সংশ্লিষ্ট দেশগুলো আইনি প্রক্রিয়া শেষ করতে না পারায় বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠাতে পারছে না।জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের হিসাবে, গত পাঁচ বছরে বিভিন্ন দেশে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেছেন, এক লাখ ৬০ হাজার ৭৩৭ বাংলাদেশি। আগের পাঁচ বছরের তুলনায় এ সংখ্যা  দ্বিগুণেরও বেশি। অর্থাৎ, গত ২০১৪ সাল থেকে দিনে গড়ে ৮৮ জন করে আবেদন করছেন। ইউএনএইচসিআর সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে বলেছে, গত বছর বাংলাদেশের ২৮ হাজার ৪৮৮ জন নাগরিক বিভিন্ন দেশে রাজনৈতিক আশ্রয়ের সুযোগ চেয়েছেন। এসব ক্ষেত্রে আবেদন যেমন বেড়েছে, তেমনি প্রত্যাখ্যানের হারও বেড়েছে বহুগুণ।

তবে ইউরোপে অবস্থানকারী বাংলাদেশিদের সংখ্যা নিয়েও আপত্তি রয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। ২০১৮ সালে ফ্রান্সে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন জমা পড়েছে ৭ হাজার ৯৬৩, ইতালিতে ৪ হাজার ১৬২, গ্রিসে ২ হাজার ৪৯৮জন।রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীরা আবেদন করার আগে বৈধ ও অবৈধ পন্থায় ওইসব দেশে গিয়ে হাজির হচ্ছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পশ্চিম ইউরোপ ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন অনুবিভাগের মহাপরিচালক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খাস্তগীর সংবাদমাধ্যমকে বলেন, এসওপির আওতায় এখন পর্যন্ত মাত্র ১৯০ জন বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে ১৬০ জন জার্মানি থেকে। বাকিরা গ্রিস ও অস্ট্রিয়া থেকে।

ইউরোপে অবস্থানকারী অবৈধ বাংলাদেশিদের সংখ্যা নিয়ে খোরশেদ আলম খাস্তগীর বলেন, ইউরোপে অবৈধ বাংলাদেশিদেরসঠিক হিসাব নেই। তারা একেক সময় একেক তথ্য জানায়