সোমবার, ৬ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
মিলানে তিন নেতাসহ করোনায় মৃত্যুবরণকারীদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া  » «   বিশেষ ফ্লাইটে আসা বাংলাদেশিদের অনেকেই করোনা ছড়াচ্ছেন ইতালীতে  » «   আমিরাতে নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত আবু জাফরকে উষ্ণ সংবর্ধনা  » «   গণধর্ষণের ঘটনায় সিলেট জেলা পুলিশের তৎপরতা  » «   কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর আর নেই  » «   জালালাবাদ এসোসিয়েশনের প্রচেষ্টায় চাটার্ড ফ্লাইটে ফ্রান্স ফিরলেন ১৫০ জন বাংলাদেশী  » «   জালালাবাদ এসোসিয়েশনের প্রচেষ্টায় ফ্রান্স ফিরেছেন ১৫০ বাংলাদেশী  » «   বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যু দুই হাজার ছাড়ালো  » «   লন্ডনে দ্বিতীয় আউটডোর ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ইউকে ২০২০ সম্পন্ন  » «   ব্রিটেনে বর্ষসেরা জিপি চিকিৎসক বাংলাদেশী বংশদ্ভোদ ডা. ফারজানা  » «   পাটকল বন্ধ করা মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা  » «   ইতালি ছাত্রলীগ নেতার উদ্যোগে সিলেটে বৃক্ষরােপন  » «   ফটিকছড়িতে করোনা হাসপাতাল প্রস্তুতিতে সহায়তা করলো ‘নারায়ণহাট প্রবাসী জনকল্যাণ পরিষদ’  » «   এম এ হকের জানাজায় মানুষের ঢল  » «   পুরো মন্ত্রীসভা নিয়ে পদত্যাগ করেছেন ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড ফিলিপ  » «  

ব্রেক্সিটের সময় বাড়ল, ইইউ নির্বাচনে অংশ নিতে হবে ব্রিটেনকে



আবার সময় বাড়ল বিচ্ছেদের। আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে আলাদা হচ্ছে না যুক্তরাজ্য। গতকাল বুধবার এই সময়সীমার বিষয়ে দুই পক্ষ সম্মত হয়েছে বলে জানান ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক। বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

গতকাল বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট ভবনে ব্রেক্সিটের সময়সীমা বাড়ানোর বিষয়ে বৈঠক হয়। পাঁচ ঘণ্টাব্যাপী ওই বৈঠক শেষে সিদ্ধান্ত জানান ডোনাল্ড টাস্ক। তিনি বলেন, ‘ব্রিটিশ বন্ধুদের জন্য আমাদের বার্তা হলো, দয়া করে এই সময়টা নষ্ট করবেন না।’ তিনি যোগ করেন, কর্মসূচি অবশ্যই সম্পূর্ণভাবে যুক্তরাজ্যের হাতে থাকবে। তারা এখনো ব্রেক্সিট চুক্তি অনুমোদন করতে পারে, সে ক্ষেত্রে এই বাড়ানো সময় বাতিল করা যাবে।

এর আগে ডোনাল্ড টাস্ক ব্রেক্সিটের জন্য ইইউয়ের কাছে যুক্তরাজ্যকে ‘১২ মাসের নমনীয়’ সময় দেওয়ার প্রস্তাব করেছিলেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, যত দ্রুত সম্ভব ইইউ ছেড়ে যাওয়া যুক্তরাজ্যের লক্ষ্য।আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকার বলেন, ইউরোপের নির্বাচনে এখন যুক্তরাজ্যকে থাকতে হবে। তা না হলে আগামী ১ জুন কোনো চুক্তি ছাড়া বিচ্ছেদ ঘটাতে হবে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ১২ এপ্রিল থেকে ৩০ জুনের মধ্যে যুক্তরাজ্যের প্রস্থানের সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করতে চেয়েছিলেন। তবে তারিখ আবার পেছানোর সুযোগটা রাখতে চেয়েছিলেন মে। কারণ, পার্লামেন্টে যদি ব্রেক্সিট চুক্তি অনুমোদন না দেওয়া হয়, তখন আবার সময় বাড়াতে হতে পারে—এমনটা ভাবছিলেন মে।

গত ২৯ মার্চ বিচ্ছেদ কার্যকরের কথা ছিল। ব্রিটিশ রাজনীতিকদের অনৈক্যের কারণে তা হয়নি। দিনটি পিছিয়ে ১২ এপ্রিল নির্ধারণ করা হয়। তবে এখনো কোনো চুক্তিতে পৌঁছাতে পারেনি ব্রিটিশ পার্লামেন্ট। আবারও সময় চায় তারা। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ৩১ অক্টোবর পছন্দ বাড়ল সময়।