বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


বাংলা স্কুল বার্সেলোনার উদ্যোগে পিঠা উৎসব



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

 

বাংলা স্কুল বার্সেলোনার উদ্যোগে ২৩ মার্চ শনিবার ‘পিঠা উৎসব ২০১৯’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্থানীয় এসকুয়েলা পিয়ার হল রুমে আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহি পিঠা উৎসবে স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী , রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ, সংগঠক, সমাজকর্মী , মিডিয়াকর্মী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।
পিঠা উৎসবে নানা স্বাদের প্রায় ৭০ ধরনের পিঠা প্রদর্শিত হয়।
স্কুল পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আলাউদ্দিন হক নেসার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন স্কুল পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমেদ ও স্কুল শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম।

অতিথিসহ আয়োজকদের কেক কাটার মাধ্যমে বিকাল সাড়ে ৪ টায় পিঠা প্রদর্শনী শুরু হয়। পরে অতিথি ও বাংলা স্কুল এর ছাত্র-ছাত্রীদের ঐতিহ্যবাহী বাঙালি পিঠা পুলির সাথে পরিচয় করিয়ে দেন আয়োজকরা। প্রদর্শনী শেষে নানা স্বাদ ও রকমের পিঠা অতিথিদের খাওয়ার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়।

পিঠার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল, বাংলার ঐতিহ্যবাহী ভাপা, খোলা চিতুই, দুধ চিতুই, কুলি, দুধপুলি, ক্ষিরেভরা পাটিসাপটা, সুন্দরী পাকান, আমিত্তি, নকশি, ফুলঝুরি, মুগডালের নকশি, প্রাণহারা, সুটকি ভর্তা,জামদানিসহ নানা স্বাদের ও রংঙের পিঠা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ দুতাবাস বার্সেলোনায় নিযুক্ত অনারারী কন্যুাহলর সিনিয়র রামন পেদ্রো, বিশেষ অতিথি ছিলেন- বার্সেলোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক আইন বিষয়ক প্রফেসর ডেভিড বোনদিয়া গ্রাসিয়া । এছাড়া উপস্থিত ছিলেন স্কুল কমিটির উপদেষ্টা মো. আউয়াল ইসলাম,মহিলা সমিতি সভাপতি মেহেতা হক জানু,নজরুল ইসলাম,
জাহাঙ্গীর আলম,আনোয়ার হোসেন চৌধুরী,উত্তম কুমার ,আফাজ জনি,শফিক খান,এখলাস মিয়া,মনিরুজ্জামাল সুহেল সহ কমিউনিটির অন্যান্য সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের বিশিষ্ট জনেরা।

 

 

কণ্ঠ: জিনাত সফিক


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন